সিলেট নগরীতে হচ্ছে না ‘গ্রিণ পার্ক’

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট নগরীর ধোপাদিঘীরপাড়স্থ সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের স্থলে একটি ‘গ্রিণ পার্ক’ গড়ে তোলা। পুরনো ঐতিহাসিক নিদর্শন ও স্থাপনা সংরক্ষণের মাধ্যমে জাদুঘর প্রতিষ্ঠা, কালচারাল সেন্টার, শিশুদের জন্য বিনোদনকেন্দ্র স্থাপনের পরিকল্পনা থাকলেও এখন তা আর হচ্ছে না। ধোপাদিঘীরপাড়স্থ সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার কারাগারই থেকে যাচ্ছে। সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার-২ নামে এ কারাগারের কার্যক্রম চলবে। 

সদ্য বিদায়ী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির অন্যতম ছিলো বন্দি স্থানান্তরের পর পুরনো কারাগারটিকে ‘গ্রিণ পার্ক’ করার। সিলেটের উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে পার্ক নিয়ে পরিকল্পনাও উপস্থাপন করেছিলেন তিনি।

২০১৬ সালের ২৬ নভেম্বর ঢাকায় অর্থমন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সিলেটের উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সিলেটের কৃতীসন্তান ও সিলেট-১ আসনের এমপি তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও তৎকালীন বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন ছাড়াও বৈঠকে সিলেট আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

গ্রিণ পার্ক করার ব্যাপারে অর্থমন্ত্রী সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে একটি ডিও লেটারও দিয়েছিলেন। তবে, সকল উদ্যোগ ভেস্তে যায় কারা অধিদপ্তরের এক নির্দেশনার পর।

জানা যায়, সিলেটসহ দেশে ৫টি পুরাতন কারাগারে নতুন জনবল ও অফিস সরঞ্জামাদির অনুমোদনের জন্য প্রস্তাব প্রেরণে একটি কমিটি করা হয়েছে। জনবল নিয়োগ দেওয়ার পর পুরাতন কারাগারে বন্দি রাখা হবে। জনবল সৃজনের পর দুটি কারাগারই যথারীতি চলবে।

খবরটি পড়া হয়েছে :981বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *