সৈয়দ আশরাফের মৃত্যুতে টুনু ও আজাদের শোক

আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সিলেট সদর উপজেলার ৭নং মোগলগাও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শামসুল ইসলাম টুনু ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট মহানগর শাখার সহ সভাপতি নজির আহমদ আজাদ ।

এক প্রেস বার্তায়  এ শোক জানানো হয়। বৃহস্পতিবার (০৩ জানুয়ারি) ব্যাংকক সময় রাত সাড়ে ৯টায় সেখানকার একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সৈয়দ আশরাফ।

শোক বার্তায় নজির আহমদ আজাদ বলেন, সৈয়দ আশরাফের মৃত্যুতে বাংলাদেশর রাজনীতিতে এক অপূরণীয় ক্ষতি। গণতন্ত্র, রাজনীতি ও সমাজ উন্নয়নে তার অবদান মানুষ শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে।

মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে  শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এদিকে পৃথক শোক বার্তায় সিলেট সদর উপজেলার ৭নং মোগলগাও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শামসুল ইসলাম টুনু   মরহুম সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

মরহুমের শোক-সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে শোক বার্তায় বলেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মৃত্যুতে বাংলাদেশ একজন মহৎ-প্রাণ, সৎ, নীতিবান, দেশপ্রেমিক  রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে হারালো।

‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ হারিয়েছে একজন আদর্শবান-ত্যাগী-নিবেদিতপ্রাণ নেতাকে। বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতির অগ্রযাত্রা ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশের অভিযাত্রায় ইতিহাসের ধ্রুবতারা হয়ে বেঁচে থাকবেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের সুযোগ্য পুত্র একাত্তরের রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন ও কীর্তিগাঁথা গৌরবময় নেতৃত্ব চির অনুসরণীয় হয়ে থাকবে।

 

খবরটি পড়া হয়েছে :26বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *