নববর্ষের অনুষ্ঠানে পরিবারের ৬ সদস্যকে গুলি করে হত্যা

থাইল্যান্ডে বর্ষবরণের এক অনুষ্ঠানে শ্বশুরবাড়িতে অবহেলিত বোধ করা এক ব্যক্তি নিজের দুই সন্তানসহ পরিবারের ছয় সদস্যকে গুলি করে হত্যা করেছেন। তারপর ওই বন্দুকের গুলিতে নিজেও আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১ জানুয়ারি) এনডিটিভিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ খবর জানা যায়।

মধ্যরাতের পর মঙ্গলবার বছরের প্রথম দিন শুরুর ১০ মিনিটের মধ্যেই এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে।

সোমবার থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ চুম্ফোনে সুচিপ সোরনসাং নতুন বছর উদযাপন করতে তার শ্বশুরবাড়িতে যান।

ফাতো জেলার একটি বিউটি পার্লারে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি চলার সময় সুচীপ ‘প্রচুর’ মদ্যপান করেন। এর এক পর্যায়ে নিজের পিস্তল বের করে গুলি শুরু করেন বলে জানায়া পুলিশ।

ফাতোর পুলিশ কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল লারপ কামপাপান জানান, নিহতরা সবাই সুচিপের পরিবারের সদস্য, এদের মধ্যে তার নয় বছর বয়সী ছেলে ও ছয় বছর বয়সী মেয়েও রয়েছে। তাদের মাথায় অথবা শরীরে গুলি করা হয়।

শ্বশুরবাড়িতে তাকে স্বাগত না জানানোয় ক্ষিপ্ত হয়েছিলেন বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা। এরপর নিজের পিস্তলের গুলিতেই আত্মহত্যা করেন সুচিপ।

নিহত বাকী চার জনের মধ্যে দুজন নারী ও দুজন পুরুষ। তাদের বয়স ৪৭ থেকে ৭১ বছরের মধ্যে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

খবরটি পড়া হয়েছে :16বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *