পদ্মা নামে যাত্রা শুরু ফারমার্স ব্যাংকের

ফারমার্স ব্যাংক কেলেঙ্কারি থেকে বেরিয়ে ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে নাম পরিবর্তন করে এর নতুন নাম হয়েছে পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। শনিবার (১৬ মার্চ) রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে লোগো উন্মোচনের মাধ্যমে ব্যাংকটি নতুনভাবে যাত্রা শুরু করে।

পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সারাফাত এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা মশিউর রহমান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ( এমডি) ও সিইও মো. এহসান খসরু।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রুপালি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আতাউর রহমান প্রধান, অগ্রণী ব্যাংকের এমডি ও সিইও শামস উল ইসলাম, জনতা ব্যাংকের এমডি ও সিইও মো. আব্দুস সালাম আজাদ, সোনালি ব্যাংকের এমডি ও সিইও ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, সারাবাংলা.নেট ও জিটিভির এডিটর ইন চীফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা মশিউর রহমান বলেন, `পদ্মা নদী একটি গুরুত্বপূর্ণ নদী। এই নদীর নামে নামকরণ করা পদ্মা ব্যাংক দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলেই আমার বিশ্বাস।’

তিনি বলেন, এক সময় পদ্মা ব্রিজ নিয়ে বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে। কিন্তু দুর্নীতির অভিযোগ কানাডার আদালতে প্রমাণিত হয়নি।

তিনি বলেন, সরকার ব্যাংকগুলোর মূলধন বাড়াতে বাজেট থেকে অর্থ সরবরাহ করছে। সরকারের এই অর্থ আমাদের কাজে লাগাতে হবে দুর্নীতির ঊর্ধ্বে থেকে।

প্রধানমন্ত্রীর অর্থ উপদেষ্টা মশিউর রহমান, ব্যাংকটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন খান আলমগীরের প্রশংসা করে বলেন, পাকিস্তান সরকারে তিনি অত্যন্ত একজন সাহসী কর্মকর্তা ছিলেন। ওই সময় তিনি পূর্ব পাকিস্তানের মানুষকে বিভিন্নভাবে শোষণ করার বিষয়টি পাকিস্তান সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে তুলে ধরতেন। তা ছিল অত্যন্ত সাহসী কাজ।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম বলেন, পদ্মা একটি বড় নদী। এই নদীর অর্থনৈতিক অবদান অনেক বেশি। তিনি বলেন, আমি আশা করি পদ্মা ব্যাংক আর্থিক খাতে পদ্মা নদীর মতই অবদান রাখবে।

রুপালি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আতাউর রহমান প্রধান বলেন, ফারমার্স ব্যাংকের বিপদের সময়ে সরকারি ব্যাংকগুলোর পাশাপাশি বেসরকারি ব্যাংকগুলোর এগিয়ে আসা উচিত ছিল। তখন বেসরকারি ব্যাংকগুলো এগিয়ে আসলে সমস্যাগুলো আরো দ্রুত সময়ের মধ্যে কাটিয়ে উঠা সম্ভব ছিল।

তিনি বলেন, পদ্মা ব্যাংকের এখনো মূলধন ঘাটতি রয়েছে, এই ঘাটতি মোকাবেলায় ৫০টি বেসরকারি ব্যাংক ২০ কোটি টাকা করে দিলে ১ হাজার কোটি টাকা ঘাটতি মোকাবেলা সম্ভব।

পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ( এমডি) ও সিইও মো. এহসান খসরু বলেন, দেশব্যাপী ৫৭টি শাখার মাধ্যমে আধুনিক ব্যাংকিং সুবিধার মাধ্যমে পদ্মা ব্যাংক তার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, অল্প সময়ের মধ্যেই ব্যাংকটি তার গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হবে। অন্যদিকে পদ্মা ব্যাংকের লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে ব্যাংকটির আগামী দিনের পরিকল্পনা তুলে ধরেন, ব্যাংকটির চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফত।

এর আগে, চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এক প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে আলোচিত ফারমার্স ব্যাংকের নতুন নামকরণ করা হয় পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। ২০১৬ সালে তৎকালীন ফারমার্স ব্যাংকে পর্যবেক্ষক নিয়োগ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। ২০১৮ সালের শুরুর দিকে ব্যাংকটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন খান আলমগীর পদত্যাগ করেন। একই বছরের শুরুতে ফারমার্স ব্যাংকের ৬৮ শতাংশ শেয়ারের মালিকানা কিনে নেয় রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, রুপালী, অগ্রণী ও জনতা ব্যাংক এবং ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। বর্তমানে দেশব্যাপী পদ্মা ব্যাংকের ৫৭ টি শাখা রয়েছে। আধুনিক ব্যাংকিং সুবিধা নিয়ে শনিবার নতুন আঙ্গিকে ও নতুন লোগো নিয়ে যাত্রা শুরু করলো পদ্মা ব্যাংক।

খবরটি পড়া হয়েছে :9বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *