বিশ্বনাথে প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ, বখাটে গ্রেপ্তার

সিলেটের বিশ্বনাথের ১৬ বছর বয়সী প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ‘ধর্ষণকারী’ বখাটে ফখরুল ইসলামকে (২৪) গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। ঘটনার দুই দিনের মাথায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বুধবার (৬ মার্চ) ভোররাতে অভিযান চালিয়ে ফখরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ।

ফখরুল উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের মৃত তৈমুছ আলীর ছেলে।

ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত ছাড়াও সে ছিনতাই (মামলা নং বিশ্বনাথ জিআর মামলা নং ১৯২/১৮ইং) মামলায় অভিযুক্ত।

এর আগে ৪ মার্চ সোমবার সকাল ৮টা থেকে ১০টার মধ্যে রামপাশার মনোহরপুর গ্রামের নিজ বসত ঘরে ধর্ষিত হন ওই প্রতিবন্ধী কিশোরী। ওই দিন তার দিনমজুর বাবা তাজ উদ্দিন কাজের জন্যে বেরিয়ে গেলে সেই সুযোগে পাশের বাড়ির বখাটে ফখরুল নির্জন ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। জন্মসনদ মতে ধর্ষিতা ওই প্রতিবন্ধী কিশোরীর জন্ম ২০০৩ সালের ২৩ অক্টোবর।

ধর্ষিতার পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, ঘটনার পর থেকে স্থানীয় ইউপি সদস্য জামাল আহমদ, রমজান আলী মেম্বার, আয়াজ আলী, তাজুল ইসলাম রাজুসহ এলাকার মাতব্বররা বিষয়টি সালিশের নামে দেড় লাখ টাকায় ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চালান। ঘটনার দুই দিনের মাথায় মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিলেটের ওসমানীনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ও বিশ্বনাথ থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম থানার এসআই রসুল হোসেনকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে ধর্ষিতা প্রতিবন্ধী কিশোরীকে উদ্ধার করে থানায় পুলিশ হেফাজতে নেন।

গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেটের ওসমানীনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ও বিশ্বনাথ থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম এ প্রতিবেদককে বলেন, বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ পাঠিয়ে ভিকটিম উদ্ধার করা হয়েছে এবং অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

খবরটি পড়া হয়েছে :3বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *