দেশে যেততেন বিনিয়োগের দরকার নেই: এম এ মান্নান

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, দেশে এখন বিনিয়োগের সুন্দর পরিবেশ তৈরি হয়েছে। বিদেশি বিনিয়োগেরও চাহিদা বাড়ছে। দেশের উন্নয়নে বিনিয়োগের প্রয়োজন আছে। তবে যেততেন বিনিয়োগের দরকার নেই। দেশের পরিবেশ, প্রতিবেশ ও সংস্কৃতিকে ক্ষতিগ্রস্ত করে— এমন বিনিয়োগ চায় না সরকার।

শনিবার (২ মার্চ) রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে প্রবাসীদের সংগঠন ‘সেন্টার ফর নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশি’ আয়োজিত ওয়ার্ল্ড কনফারেন্স সিরিজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান এম এস সেকিল চৌধুরী অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। ‘দায়িত্বশীল নাগরিক, সমৃদ্ধ দেশ’ স্লোগানে প্রবাসীদের নিয়ে বিশ্বের ১২টি দেশে ধারাবাহিক সম্মেলন হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, প্রবাসীদের বিনিয়োগ হবে শ্রেষ্ঠ বিনিয়োগ। কারণ এ বিনিয়োগ এদেশে থেকে যাবে। প্রবাসী বাংলাদেশিরা যাতে সহজে এদেশে বিনিয়োগ করতে পারে সেই লক্ষ্যে সব প্রক্রিয়া সহজ করার উদ্যোগ নেওয়া হবে।

এফবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, সরকার ব্যবসা শুরু করার (ডুয়িং বিজনেস) ধাপগুলো সহজ করার উদ্যোগ নিয়েছে। রাজউকের যে কাজ আগে ১৬ ধাপে করতে হতো নতুন সরকার এসে তা চার ধাপে নামিয়ে এনেছে। একইভাবে অন্যান্য সংস্থাগুলো প্রক্রিয়া সহজ করছে।

তিনি বলেন, অবকাঠামো উন্নয়নে চলমান মেগা প্রকল্পের কাজ শেষ হলে দেশে বিনিয়োগ বাড়বে। তবে সময়ের মধ্যে এবং গুণগতমান ঠিক রেখে এসব প্রকল্প যাতে বাস্তবায়ন করা যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম বলেন, বিশ্ব অর্থনীতিতে বাংলাদেশের সংযোগ বেড়েছে। এই অর্থনীতিকে এগিয়ে দিতে প্রবাসীরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। কারণ অনেক প্রবাসী বাংলাদেশি এখন বিভিন্ন দেশে ভালো অবস্থানে রয়েছে।

লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেটসের স্পিকার আয়াস মিয়া বলেন, যুক্তরাজ্যের অনেক প্রবাসী এখনও বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্র পায়নি। সরকার এ বিষয়ে উদ্যোগ নিলে অনেকে বিনিয়োগে উৎসাহী হবে।

এ সময় তিনি রেমিট্যান্স পাঠানোর প্রক্রিয়া আরও সহজ করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন।

খবরটি পড়া হয়েছে :4বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *