নবীগঞ্জের লন্ডন প্রবাসী মৌলভীবাজার মাদক নিরাময় কেন্দ্রে হত্যা, গ্রেপ্তার ২

নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জের বাংলাদেশী বংশদুত বৃটিশ নাগরিক জালাল উদ্দিন (৩৭) নামের এক যুবককে মৌলভীবাজারে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল রোডে অবস্থিত উদ্দীপন মাদক নিরাময় কেন্দ্রের পরিচালক মৌলভীবাজার সদর উপজেলার কাজিরগাঁও (পূর্ব) গ্রামের লুৎফুর রহমান খানের পুত্র সুহেল মিয়া (৩৬) ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভাড়াউড়া (উত্তর ভাড়াউড়া) গ্রামের কৃপেশ দেব এর পুত্র নয়ন দেব(২৮)। গ্রেপ্তাকৃত দুজনই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।

গত শনিবার রাতে মৌলভীবাজার থানার এসআই গিয়াস উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মৌলভীবাজার ও শ্রীমঙ্গল এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেপ্তার করেন।

এসআই গিয়াস উদ্দিন গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

উল্লেখ্য, হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জের মৃত ইছিরাব উল্লার পুত্র জালাল উদ্দিন গত এপ্রিল মাসে দেশে আসেন। সে  মাদকাসক্ত থাকায় তাকে মৌলভীবাজার উদ্দিপন মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করার জন্য কেন্দ্রের পরিচালক রিপন আহমেদের সাথে যোগাযোগ করেন। এ সময় তারা সঠিক চিকিৎসা দিবে বলে আশ্বস্থ্য করেন। গত ২৯ডিসেম্বর দুপুরে  উক্ত কেন্দ্রের পরিচালক রিপন আহমদ ও সুহেল জালালের বাড়িতে এসে তাকে নিয়ে যান এবং উক্ত নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করেন।

গত ৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় পরিচালক রিপনের নম্বর থেকে মুঠোফোনে প্রবাসী জালাল উদ্দিন এর আত্মীয় ও মামলার সাক্ষী নাজমুল হক পিনুকে  জানানো হয় জালাল অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে। এ খবরে তারা দ্রুত সিলেট যান এবং হাসপাতালে খোঁজাখুজি করে জালালকে পাননি। পরে ওই নাম্বার থেকে আবার জানানো হয় জালাল মারা গেছে। আপনারা মৌলভীবাজার আসেন। পরে মৌলভীবাজার এসে উদ্দিপন মাদক নিরাময় কেন্দ্রের সামনে একটি এম্ব্যেুলেন্সের ভেতর জালালের মৃত দেহ দেখতে পান।

এ সময় নিরাময় কেন্দ্রের কাউকে খুজে পাওয়া যায়নি। নিহত জালালের শরিরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়। এ ঘটনায় নিহত জালালের স্ত্রী রুমিতা বেগম বাদী হয়ে মৌলভীবাজার থানায় ৭ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

খবরটি পড়া হয়েছে :6বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *