স্নাতকোত্তর ডিগ্রি ছাড়া ব্যাংকের এমডি নয়

বাংলাদেশের কোনো তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হতে হলে এখন থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির অবশ্যই ন্যূনতম স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে।

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) এমডি নিয়োগের ক্ষেত্রে এমন নতুন শর্ত যুক্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এ ছাড়া এমডি পদে নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে অর্থনীতি, হিসাববিজ্ঞান, ফাইন্যান্স ও ব্যাংকিং, ব্যবস্থাপনা কিংবা ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রিধারীদের গুরুত্ব দিতে হবে। শিক্ষাজীবনে কোনো পর্যায়ের পরীক্ষার ফলাফলে তৃতীয় বিভাগ আছে, এমন কাউকে এমডি পদে নিয়োগ দেওয়া যাবে না। 

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী, ব্যাংকের এমডি পদে নিয়োগের জন্য ১৫ বছরের ব্যাংকিং অভিজ্ঞতা এবং এমডির পূর্ববর্তী পদে কমপক্ষে ২ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হয়। কোনো কোম্পানির চেয়ারম্যান বা পরিচালক বা কর্মচারী থাকা অবস্থায় ওই পদ থেকে বরখাস্ত হওয়া কোনো ব্যক্তিকে ব্যাংকের এমডি হিসেবে নিয়োগের ক্ষেত্রে অযোগ্যতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

এ ছাড়া ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালক বা ব্যাংকের ব্যবসায়িক স্বার্থের সঙ্গে জড়িত এমন ব্যক্তিও এমডি হওয়ার অযোগ্য বলে ধরা হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বেঁধে দেওয়া নিয়ম অনুযায়ী, কোনো ব্যাংকের এমডির বেতন–ভাতা নির্ধারণে ব্যাংকের আর্থিক অবস্থা, কর্মকাণ্ডের ব্যাপকতা, ব্যবসার পরিমাণ ও উপার্জন ক্ষমতা, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির যোগ্যতা ও অতীত কর্মসাফল্য, বয়স ও অভিজ্ঞতা, সমপর্যায়ের অন্য ব্যাংকের একই পদে নিযুক্ত ব্যক্তির বেতন-ভাতা বিবেচনায় নিতে হয়। ব্যাংকের প্রধান আর্থিক সূচক ক্যামেলসে উন্নতি ছাড়া এমডির বার্ষিক বেতন বাড়ানো যাবে না।

এমডি পদে নিয়োগে বাংলাদেশ ব্যাংকের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। এ ছাড়া ব্যাংকের এমডির মেয়াদ শেষে ওই একই ব্যাংকের উপদেষ্টা হিসেবে কাউকে নিয়োগ দেওয়া যায় না। তবে কমপক্ষে ২ বছরের বিরতির পর উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া যাবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রজ্ঞাপনে বলেছে, এমডি হতে হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে দেশের যেকোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ন্যূনতম স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী হতে হবে। গ্রেডিং পদ্ধতিতে প্রকাশিত ফলাফলের ক্ষেত্রে এসএসসি বা সমমান ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ক্ষেত্রে জিপিএ–৩–এর বেশি পেতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সিজিপিএ–৪-এর মধ্যে ন্যূনতম ২ দশমিক ৫০ এবং সিজিপিএ–৫-এর ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৩ থাকতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, কয়েকটি ব্যাংকে এমডি পদে নিয়োগ পেতে এমন কয়েকজন ব্যাংকার চেষ্টা করছেন, যাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে নানা প্রশ্ন রয়েছে। এ ছাড়া ব্যাংকার হিসেবেও তারা খুব বেশি উৎকর্ষ দেখাতে পারেননি। এরপরও পরিচালনা পর্ষদের কাছের লোক হওয়ায় তারা এমডি হিসেবে নিয়োগ পেতে পারেন। এ কারণেই এমডি পদে নিয়োগে নতুন করে শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি যুক্ত করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

খবরটি পড়া হয়েছে :11বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *