‘শেখ হাসিনার সরকার সবার জন্য সমান সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করেছে’

সিলেট-১ আসনে মহাজোট মনোনীত প্রার্থী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার সকল শ্রেণি পেশা ও জাতিগোষ্ঠীর জন্য সমান অধিকার, সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করেছে। ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে। বিগত দশবছরে এ সরকারের সকল ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে, উৎসবমুখর পরিবেশে নিজ নিজ ধর্ম-কর্ম পালন করেছেন। বিশেষ করে সিলেট অঞ্চলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যরে পরিবেশ বজায় ছিল।

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) সিলেট নগরীর লামাবাজারে নির্বাচনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এর আগে সকালে তিনি শিবগঞ্জ মনিপুরী পাড়া ও আশপাশ এলাকায় গণসংযোগ করেন। পরে দুপুরে দক্ষিণ সুরমার রেল-স্টেশন কলোনি এলাকায় গণসংযোগ করেন।

ড. মোমেন বলেন, সংবিধানে দেশের সকল নাগরিকের সমান অধিকার ও সুযোগ-সুবিধার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু, অতীতে আমরা দেখেছি, সন্ত্রাস-লুটতরাজ ও দখলদারিত্বের কারণে ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষ সবসময় ভীতিকর পরিস্থিতিতে বসবাস করতো। তাদেরকে সবধরনের সুবিধা থেকে বি ত করে রাখা হয়েছিল।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর সকলের জন্য সমান সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করেছেন। শিক্ষা, চাকুরী, ব্যবসা-বাণিজ্য ও উৎসবে ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর জন্য বিশেষ সুবিধা দেওয়া হয়েছে। দেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রায় এখন তারা সমান অংশীদার।

এই ধারা অব্যাহত রাখতে এবং একটি নিরাপদ ও উন্নত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় আগামী ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দিয়ে আবারো শেখ হাসিনার সরকার প্রতিষ্ঠায় তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

এসব সভা ও গণসংযোগে ড. মোমেনের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলরের সদস্য রুহুল আনাম চৌধুরী মিন্টু, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা ডা. আরমান আহমদ শিপলু, এডভোকেট বিপ্লব কান্তি দে মাধব, সালাহ উদ্দিন বকস ছালাই, কাউন্সিলর রকিবুল হাসান ঝলক, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আফসার আজিজ, মহানগর কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রকিব বাবলু, বাংলাদেশ মনিপুরী যুব সমিতির সভাপতি ফেলেম ধীরেন সিংহ, সাধারণ সম্পাদক ওয়াই লাড় সিংহ, প্রদীপ সিংহ, চন্দ্র শেখর সিংহ বদর, ধর্মজিৎ সিংহ, চানমনি দেবী, জীতেন সিংহ, নীলমণি সিংহ, পরিমল সিংহ, হরিলাল সিংহ, শিবগঞ্জ মনিপুরী পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৌরভ সিংহ, সহ-সভাপতি খৈশনাম পূর্ণিমা, রাসেল সিংহ, আতিয়া মাইরাম, ছাত্রলীগ নেতা রজত সিংহ প্রমুখ।

খবরটি পড়া হয়েছে :9বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *