শ্রীমঙ্গলে বিএনপি প্রার্থীর গাড়িবহর থেকে ১৫ নেতাকর্মীকে আটক

শ্রীমঙ্গলে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ১৫ নেতাকর্মীকে আটকের অভিযোগ ওঠেছে। মঙ্গলবার রাতে মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) আসনের বিএনপির প্রার্থী মুজিবুর রহমান চৌধুরী সংবাদ সম্মেলন করে তাঁর গাড়িবহর থেকে ১৫ নেতাকর্মীকে আটকের অভিযোগ করেন। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে পৌর যুবদলের সদস্য সোহেল আহমদ ও ছাত্রদল নেতা মান্না রয়েছেন বলে জানান তিনি।

এ অভিযোগের ব্যাপারে মৌলভীবাজারে এএসপি (সার্কেল) আশরাফুজ্জামান বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদের প্রচার গাড়িতে হামলা হয়। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেয়া হয়। এ প্রেক্ষিতে কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। তবে ঠিক কতোজনকে আটক করা হয়েছে তা এই মূহূর্তে বলা যাবে না।

এদিকে মঙ্গলবার রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি প্রার্থী মুজিবুর রহমান চৌধুরী অভিযোগ করেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ভোজপুর বাজারে নির্বাচনী সভা শেষে আমার গাড়ী ও আমার নিজস্ব নিরাপত্তার জন্য নিয়োজিত দুটি গাড়ী নিয়ে ভোজপুর বাজার থেকে বের হয়ে আসলে শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে.এম.নজরুলের নেতৃত্বে একদল পুলিশ আমার গাড়ীর গতি রোধ করে। এসময় তারা আমার গাড়ীটি ছেড়ে দিয়ে আমার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অপর দুইটি গাড়ী থেকে আমার নেতাকর্মীদের পুলিশ অকথ্য ভাষায় গালা গালি ও মারধর করে আটক করে নিয়ে যায়।

তিনি অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার দুপুরে শ্রীমঙ্গল উপজেলা তাঁতীদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমাদ আলীকে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ আটক করে। কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগরে ঐক্যপ্রক্রিয়ার একটি মিটিং-এ পুলিশ অভিযান চালিয়ে মিটিং পন্ড করে দেয় এবং নেতাকর্মীদের বিনা ওয়ারেন্টে আটক করার চেষ্টা করে। নেতাকর্মীরা প্রাণ নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ রহিমপুর ইউনিয়নের নির্বাচনী অফিস হতে উপজেলা বিএনপি সহ প্রচার সম্পাদক শিপলুকে আটক করে।

খবরটি পড়া হয়েছে :11বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *