ভারতে সঙ্গীকে কোপালো সমকামী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক; সম্প্রতি ভারতে বৈধতা পেয়েছে সমকামিতা। তারপর থেকেই দেশটিতে আলোচনায় রয়েছে এই বিষয়টি। এরই মধ্যে সমকামী দম্পতিদের মামলা পড়তে শুরু করেছে পুলিশের কাছে। সম্প্রতি এক সমকামী দম্পতির এক সঙ্গী তার অপর সঙ্গীর অতিরিক্ত যৌন চাহিদার ফলে বিরক্ত হয়ে তাকে হত্যার চেষ্টা করেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, ৪৬ বছর বয়সি এক ব্যক্তির সঙ্গে সমকামী সম্পর্ক গড়ে ওঠে ২৩ বছরের এক যুবকের। মহারাষ্ট্রের পুনেতে একইসঙ্গে বসবাস করতেন তারা। ওই যুবকের খরচও দিত তার সঙ্গী।

তবে ৪৬ বছরের ব্যক্তির অতিরিক্ত যৌন চাহিদা সামাল দিতে পারছিল না ওই যুবক। তার জেরে রাতে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সঙ্গীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে যখম করে যুবক। তার মুখে, মাথায়, হাতে এবং বুকে গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে।

৪৬ বছরের ওই ব্যক্তির অভিযোগ, লোহার ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে মারতে চেয়েছিল সঙ্গী৷ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷

খড়ক পুলিশ স্টেশনের সিনিয়র ইন্সপেক্টর রাজেন্দ্র মোকাশি জানান, ‘সকাল ছয়টার দিকে একটা ফোন পাই৷ ফোনের ওপার থেকে বলা হয় তাকে খুনের চেষ্টা করা হচ্ছে৷ ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতও করা হয়েছে…৷ এই ঘটনার আগে পর্যন্ত আক্রান্তের পরিবার জানত না তিনি সমকামী৷ বছর ২৫ আগে আক্রান্ত ব্যক্তি বিয়ে করেন৷ কিন্তু এক বছরের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায়৷ কিন্তু বাড়ির ছেলে অন্য কোনো যুবককে ভালোবাসে এ কথা শোনার পর হতবাক বাড়ির লোকজন৷’

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, ‘গত দু’বছর ধরে আক্রান্ত ও অভিযুক্ত দুই যুবক একে অপরকে চেনেন৷ অনলাইন একটি ডেটিং পোর্টালে তাদের আলাপ৷ অভিযুক্ত যুবক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা করেছেন৷ একটি তিন তারা হোটেলে কাজ করেন৷ ৪৬ বছরের ওই যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হওয়ার পর থেকে বয়সে ছোট প্রেমিকের খরচ অনেকটাই দিতেন আক্রান্ত ব্যক্তি’৷

তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘তারা প্রায়ই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতেন৷ জেরার মুখে অভিযুক্ত জানিয়েছেন, তাকে বারবার যৌনসম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হতো৷ মঙ্গলবার রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে এই নিয়ে তাদের মধ্যে ঝামেলাও হয়’৷

খবরটি পড়া হয়েছে :24বার!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *